৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব পদক পেলেন ৫ নারীবঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কুমিল্লায় শিক্ষাবোর্ডের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালনকুমিল্লায় ব্ল্যাকমেইলিংয়ের অভিযোগে দুই যুবককে আটককুমিল্লায় তেল প‌রিমা‌পে কারচূ‌পি; দুই ফি‌লিং স্টেশনকে দেড় লাখ টাকা জরিমানাকুমিল্লায় ১৪৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ এক মাদক কারবারি আটকজ্বালানি ও সারের দাম বৃদ্ধি উৎপাদনে প্রভাব ফেলবে নাঃ কুমিল্লায় কৃষিমন্ত্রীডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সবার সচেতনতা প্রয়োজনঃ মেয়র আতিকআগুনে ঘর পুড়ে ছাই, শোকে বৃদ্ধার মৃত্যুনোয়াখালীর বেগমগঞ্জে অস্ত্রসহ দুই যুবক গ্রেফতারবাসভাড়া বাড়লো মহানগরীতে প্রতি কিমি ৩৫, দূরপাল্লায় ৪০ পয়সা

সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ ফায়ার মহাপরিচালকের

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
header

নগরবাংলা নিউজ ডেস্ক।।

সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ ফায়ার মহাপরিচালকের, ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ, ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের বিদ্যমান সুনাম অব্যাহত রাখতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ। এ সময় তিনি সততা, শৃঙ্খলা ও আনুগত্য বজায় রেখে ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজ নিজ দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান।

সোমবার (২১ মার্চ) ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরে সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে আয়োজিত দরবার অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে অধিদপ্তরের পরিচালক, ফায়ার সার্ভিস কল্যাণ ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, প্রকল্প পরিচালকসহ জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় সাফল্যের সঙ্গে তিনবছর পার করায় মহাপরিচালকের হাতে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পক্ষ থেকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

এর আগে দরবার অনুষ্ঠানে মহাপরিচালককে স্বাগত জানান ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) মো. হাবিবুর রহমান এবং পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান।

একদল চৌকস অগ্নিসেনা এ সময় মহাপরিচালককে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। মহাপরিচালক দরবার অনুষ্ঠানের মঞ্চে আরোহণ করার পর পরিচালক (প্রশিক্ষণ, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. রেজাউল করিম তাকে সশ্রদ্ধ অভিবাদন জ্ঞাপন করেন। এ সময় পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) মহাপরিচালককে ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

দরবার অনুষ্ঠানে বক্তব্যের শুরুতে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া সব মুক্তিযোদ্ধার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এছাড়াও তাকে সংস্থাটির মহাপরিচালক নিযুক্ত করায় প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, সুরক্ষা সেবা বিভাগ, সেনাবাহিনীর প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

একই সঙ্গে তিনি মহান আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানান। এছাড়া তিনি গত তিন বছর ধরে তার কর্তব্য পালনকালে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতার জন্য সরকার, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

এরপর মহাপরিচালক সংক্ষিপ্তভাবে তিন বছরের কর্মকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উন্নয়ন-অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরেন। এরমধ্যে ফায়ার ফাইটারসহ ৫টি পদের বেতন ও মর্যাদা বৃদ্ধি, পদোন্নতির গতি ত্বরান্বিতকরণ, ইউনিফর্মের পেটেন্ট অনুমোদন, ফায়ারম্যান পদবি পরিবর্তন করে ফায়ার ফাইটার নামকরণ, ফায়ার স্টেশন এবং জনবল ও সাজ-সরঞ্জাম বৃদ্ধি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফায়ার একাডেমির জন্য ১০০ একর জায়গা অধিগ্রহণ, ৩৩ শতাংশের পরিবর্তে এক একর ও ৮০ শতাংশ জায়গায় ফায়ার স্টেশন করার শর্ত নীতিমালায় অন্তর্ভুক্তকরণ, পূর্বাচলে তিনতলা ব্যারাক ভবন নির্মাণ, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অফিসে আসা-যাওয়ার জন্য বাস চালুকরণ, কর্মকর্তা কর্মচারীদের ব্যক্তিগত নম্বরে শৃঙ্খলা আনয়ন, অপারেশনাল কাজে আহত-নিহতদের আর্থিক সাহায্য প্রদান (মৃতদের ক্ষেত্রে ১০ লাখ টাকা করে প্রদান), ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের মাধ্যমে বিভিন্ন জেলায় মার্কেট নির্মাণ, অপারেশনাল কাজ সহজ করতে ক্রাউড কনট্রোল টিম এবং হটলাইন নম্বর ১৬১৬৩ চালুকরণ ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

এছাড়া বাস্তবায়নের শেষ পর্যায়ে রয়েছে এমন কাজের মধ্যে উল্লেখযোগ্য- জনবল ৩০ হাজারে উন্নীত করার জন্য অর্গানোগ্রাম পুনর্গঠন, সব জেলায় সহকারী পরিচালকের পদ সৃজন, পোশাক বিধিমালা প্রণয়ন, স্টেশন স্থাপনের নীতিমালা প্রণয়ন, আজীবন রেশন প্রদান, সব স্টেশনে একটি করে অ্যাম্বুলেন্স প্রদান, আরও ১৫০টি নতুন ফায়ার স্টেশন স্থাপনে প্রকল্প গ্রহণ, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য আবাসন প্রকল্প, ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট থেকে প্রতি বছর সাতজনকে ওমরাহ পালনের খরচ প্রদান ও অসহায় কর্মচারীদের সন্তানদের জন্য শিক্ষাবৃত্তি প্রবর্তন ইত্যাদি।

অনুষ্ঠানে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দ্যেশে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক বলেন, প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে জিরো টলারেন্সের নীতিমালা বলেছেন, যতদিন কর্মরত থাকবো আমি সেই নীতি মেনে চলবো। এ বিষয়ে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। চাকরিজীবনে কখনো কোথাও অন্যায়ের সঙ্গে আপস করিনি এবং বাকি জীবনেও করবো না।

দরবার শেষে সদর দপ্তরের কনফারেন্স হলে সদ্য অবসরে যাওয়া ছয়জন কর্মকর্তার সম্মানে আয়োজিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। এ সময় তাদের কর্মজীবনের ওপর স্মৃতিচারণা করে সূচনা বক্তব্য দেন পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান। সভাপতির বক্তব্য দেন পরিচালক (প্রশাসন ও অর্থ) মো. হাবিবুর রহমান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সদ্য অবসরে যাওয়া ছয় কর্মকর্তা। তাদের মধ্যে পাঁচজন উপ-পরিচালক। তারা হলেন- দেবাশীষ বর্ধন, শামীম আহসান চৌধুরী, মজিবুর রহমান চৌধুরী, মোহাম্মদ আলী, মো. আকরাম হোসেন। অন্যজন সহকারী রক্ষণাবেক্ষণ প্রকৌশলী মো. আখতারুজ্জামান।

বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সদ্য অবসরে যাওয়া কর্মকর্তাদের হাতে মহাপরিচালক সম্মাননা স্মারক ও বিদায়ী শুভেচ্ছা তুলে দেন। এছাড়া তিনি তার বক্তব্যে সবার কর্মজীবনের মূল্যায়ন করেন এবং তাদের অবসর জীবনের প্রশান্তি কামনা করেন।

দরবার ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মিডিয়া সেলের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শাহজাহান শিকদার।

After Related Post