১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাবি ছাত্রীর মৃত্যু: কারাগারে স্বামী

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
header

নগরবাংলা নিউজ ডেস্ক।।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আইন বিভাগের শিক্ষার্থী রিক্তা আক্তারের (২১) অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় তার স্বামী আব্দুল্লাহ ইসতিয়াক রাব্বীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় শনিবার (৩০ জুলাই) দুপুরে নগরীর মতিহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন রিক্তার বাবা লিয়াকত আলী জোয়ার্দার। এর পরপরই রিক্তার স্বামী আব্দুল্লাহ ইসতিয়াক রাব্বীকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন। বিষয়টি নগরীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিন নিশ্চিত করেছেন।

ওসি আনোয়ার আলী তুহিন বলেন, ওই ছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনাটি খুবই রহস্যজনক। ময়নাতদন্ত শেষে শনিবার বিকেলে রিক্তার মরদেহ তার বাবার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় বাদী হয় তার বাবা থানায় মামলা করেছেন। মামলার এজাহারে তিনি তার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন।

ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে তার মৃত্যুর রহস্য জানা যাবে বলেও জানান মতিহার থানার এ পুলিশ কর্মকর্তা।

এর আগে শুক্রবার (২৯ জুলাই) দিনগত রাত ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়সংলগ্ন ধরমপুর পূর্বপাড়া এলাকার একটি বাসা থেকে রিক্তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মুমূর্ষু অবস্থায় রিক্তাকে তার স্বামী ও তার বন্ধুরা ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যায়।

রিক্তা বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া কুমারখালির জোতপাড়া গ্রামে। দুই বছর আগে ইসতিয়াক রাব্বির সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় তার। কলেজ জীবন থেকেই তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। তারা দুইজনই ব্যাচমেট। এক বছর ধরে তারা ধরমপুর পূর্বপাড়ায় বাসা ভাড়া করে একসঙ্গে থাকছিলেন। ইসতিয়াতের

After Related Post