৮ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৩শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাত পোহালেই চৌদ্দগ্রাম পৌরসভা নির্বাচন

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
১৫৩
header

চৌদ্দগ্রাম প্রতিনিধি।।

রাত পোহালেই চৌদ্দগ্রাম পৌরসভা নির্বাচন। অর্থাৎ শনিবার (৩০ জানুয়ারি)দিনভর মোট ৯টি ওয়ার্ডের ১২টি কেন্দ্রের ৭৫টি ভোট কক্ষে ভোট গ্রহণ চলবে। এতে মোট ভোটার সংখ্যা ২৮ হাজার ১৯৭ জন ।

মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জিএম মীর হোসেন মীরু এবং বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো: হারুন অর রশিদ, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো: হাসান শাহরিয়ার খাঁ (মোবাইল ফোন), মো: বেলাল আহমেদ মিয়াজী (জগ)। কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছে মোট ৬০ জন প্রার্থী। নির্বাচন উপলক্ষে মিছিল-মিটিংয়ে এবং ভোটারদের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চেয়েছেন প্রার্থী ও সমর্থকরা।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জিএম মীর হোসেন মীরু বলেন, আমি জয়ের ক্ষেত্রে শতভাগ আশাবাদী। জনগণ আমার সাথে রয়েছেন এবং তারা আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আশ্বাস দিয়েছেন।

বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো: হারুন অর রশিদ বলেন, ভোটাররা যদি কোন বাধাপ্রাপ্ত না হয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদান করতে পারে তাহলে আমি জয়লাভ করব।

অপরদিকে, সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রার্থীরাও প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: ফারুক হোসেন বলেন, পৌর-নির্বাচনকে ঘিরে আমরা সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। প্রিজাইডিং অফিসারদের কাছে ব্যালট বাক্স, স্যানিটাইজার সহ নির্বাচনী সকল সরঞ্জাম বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রিজাইডিং অফিসাররা মালামাল নিয়ে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছেন।

এদিকে শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের আয়োজনে উপজেলার চৌদ্দগ্রাম এইচ জে পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর এক সভার মাধ্যমে কেন্দ্র অনুযায়ী পুলিশ, আনসার ও স্ট্রাইকিং ফোর্সের (বিজিবি ও আর্মড পুলিশ) সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের ইনচার্জ ও সদস্যদেরকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দেয়া হয়।

এসময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত ব্রিফিং দেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (চৌদ্দগ্রাম সার্কেল) মো: সাইফুল ইসলাম সাইফ। অন্যান্যের মধ্যে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন চৌদ্দগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শুভ রঞ্জণ চাকমা, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ত্রিনাথ সাহা তন্ময়, চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আনসার বিডিপি কর্মকর্তা মো: আব্দুল হালিম প্রামাণিক। এসময় উপজেলা আনসার-বিডিপি’র প্রশিক্ষিকা মোসা নাজমা আক্তার সহ চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে বারটির কেন্দ্রে ভোট গ্রহণের যাবতীয় সরঞ্জাম নিয়ে দাযিত্বপ্রাপ্ত বিভিন্ন কর্মকর্তাবৃন্দ কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, চৌদ্দগ্রাম পৌর নির্বাচনে ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, প্রায় সাড়ে তিনশ’ পুলিশ সদস্য, শতাধিক আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিজিবি ও আর্মড পুলিশের কয়েক প্লাটুন সদস্যকে বাড়তি সতর্কতায় রাখা হয়েছে।

After Related Post