১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৩ গুণীজনকে সংবর্ধনা

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
header

নগরবাংলা নিউজ ডেস্ক।।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৩ গুণীজনকে সংবর্ধনা কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন রাবি উপাচার্য
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ৪৩ জন সাবেক গুণী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিয়েছে রাজশাহী ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন। তারা বিভিন্ন সময়ে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার, একুশে পদক ও স্বাধীনতা পুরস্কার পেয়েছেন।

রোববার (২০ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবাস বাংলাদেশ চত্ত্বরে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার গুণীজনদের হাতে সংবর্ধনা স্মারক তুলে দেন।

অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের আহ্ববায়ক রাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল ইসলাম ঠাণ্ডুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মোহাম্মদ জাকারিয়া ও অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম।

সংবর্ধিত গুণীজনদের মধ্যে স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন-শহীদ অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শামসুজ্জোহা, শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামান, ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ, অধ্যাপক জিল্লুর রহমান সিদ্দিকী, কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক, যতীন সরকার, সেলিনা হোসেন, মহাদেব সাহা।

একুশে পদকপ্রাপ্তরা হলেন- মমতাজ উদদীন আহমদ, জিয়া হায়দার, অধ্যাপক মুহম্মদ শামস-উল হক, অধ্যাপক সনৎ কুমার সাহা, অধ্যাপক মজিবর রহমান দেবদাস, কবি ওমর আলী, গোলাম আরিফ টিপু, হালিমা খাতুন, ডা. আ আ ম মেসবাহুল হক (বাচ্চু ডাক্তার), ড. গোলাম মুরশিদ, এস এম আব্রাহাম লিংকন, ফরিদা পারভিন, অধ্যাপক মনিরুজ্জামান মিয়া।

বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন- ড. মযহারুল ইসলাম, কবি আতাউর রহমান, বদরউদ্দিন উমর, আবদুল হাফিজ, কবি আবুবকর সিদ্দিক, অধ্যাপক আলী আনোয়ার, সুশান্ত মজুমদার, অধ্যাপক খান সারওয়ার মুরশিদ, অধ্যাপক খোন্দকার সিরাজুল হক, অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম, জাকির তালুকদার, মাসুম রেজা, মামুন হুসাইন, অধ্যাপক মলয় ভৌমিক, স্বরোচিষ সরকার, রতন সিদ্দিকী, ইমতিয়ার শামীম, আনজীর লিটন, রফিকুর রশীদ, আমিনুর রহমান সুলতান, মো. জাহাঙ্গীর আলম শাহ ও অধ্যাপিকা ড. হোসনে আরা বেগম।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সশরীরে উপস্থিত ছিলেন সেলিনা হোসেন, অধ্যাপক সনৎ কুমার সাহা, এস এম আব্রাহাম লিংকন, অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম, জাকির তালুকদার, মাসুম রেজা, অধ্যাপক মলয় ভৌমিক, স্বরোচিষ সরকার, রতন সিদ্দিকী, ইমতিয়ার শামীম, আনজীর লিটন, রফিকুর রশীদ, আমিনুর রহমান সুলতান, মো. জাহাঙ্গীর আলম শাহ ও অধ্যাপিকা হোসনে-আরা বেগম।

অনুষ্ঠানে উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ জ্ঞানকেন্দ্র। প্রায় ৭০ বছরে ধরে এ বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। এ বিশ্ববিদ্যালয়কে আমরা উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার সেন্টার অব এক্সেলেন্সে পরিণত করতে চাই। এজন্য অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনও দৃষ্টান্তমূলক ভূমিকা পালন করতে পারে। তারা সেই ভূমিকা পালনে এগিয়ে আসবে বলে আশা করি।

এদিকে, গুণীজনদের সংবর্ধনা শেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ঐতিহ্যবাহী যাত্রাপালার আয়োজন করা হয়।

After Related Post