৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মুরাদনগরে সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা- হলুদ মাঠে কৃষকের মুখে হাসি

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
১৩৯
header

মুরাদনগর প্রতিনিধি।।

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার অধিকাংশ সরিষাক্ষেতে ফুল ফুটেছে। অনেক জমিতে সুন্দর বীজও আসতে শুরু করেছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন চাষিরা। লাভের আশায় তাদের মুখে এখন হাসি। বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে মাঠের পর মাঠজুড়ে সরিষা ফুলের নয়নাভিরাম দৃশ্য। যেদিকে চোখ যায় শুধু হলুদ আর হলুদ। হলুদের আভা ছড়িয়ে আছে দিগন্ত জুড়ে। মৌমাছিদের গুনগুন শব্দে এখন মুখরিত সরিষার মাঠগুলো। তবে অনেক জমিতে ফুল শেষ হয়ে বীজ দেখা দিতে শুরু করেছে। বীজগুলোও বেশ তরতাজা মনে হচ্ছে, যা ভালো ফলনের সম্ভাবনার জানান দিচ্ছে।

নেয়ামতপুর গ্রামের কৃষক মহিউদ্দিন জানান, তিনি ৬০শতক জমিতে সরিষা চাষ করেছেন। এখন পর্যন্ত জমিতে কোনও সমস্যা দেখা যায়নি। ভালো ফলনের আশা করছেন।

করিমপুর গ্রামের কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান জানান, তিনি এ বছর বীনা সরিষা-৯ চাষ করেছেন। গাছে ফুল আসতে শুরু করেছে। আর কিছুদিনের মধ্যে সম্পূর্ণ জমিতে ফুল চলে আসবে। ভালো ফলনের আশা করছেন। যদি এ বছর সরিষার ভালো মূল্য পাওয়া যায়, তবে ভলো লাভবান হবেন বলেও জানান।

উপজেলা কৃষি কৃষি কর্মকর্তা মাঈন উদ্দিন আহমেদ সোহাগ জানান, গত বছর উপজেলায় সরিষা চাষাবাদ করা হয় ৪৭৫০ হেক্টর জমিতে। কৃষকেরা ভালো মূল্য পাওয়ায় এবার সরিষার চাষাবাদ বেড়েছে। চলতি মৌসুমে সরিষা চাষ করা হয়েছে ৫১৫০ হেক্টর জমিতে, যা গত বছরের তুলনায় ৪০০ হেক্টর বেশি। উপজেলার শ্রিকাঈল, রামচন্দ্রপুর (উঃ), রামচন্দ্রপুর (দঃ), আকবপুর, যাত্রাপুর, কামাল্লা এলাকায় বারি সরিষা-১৪, বারি সরিষা-১০ ও বীনা সরিষা-৯ এর ব্যপক চাষাবাদ হয়েছে।

উপজেলা কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে প্রনোদনা ও প্রদর্শনী বাবদ বীজ ও সার সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া অধিক ফলনের জন্য সরিষার বিভিন্ন রোগ বালাই দমন ও পরিচর্যা বিষয়ে কৃষকদের প্রতিনিয়ত বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন বলেও তিনি জানান।

After Related Post