৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মনোহরগঞ্জে এ বছর বোরো ধানের বাম্পার ফলন

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
১৫৪
header

মনোহরগঞ্জ প্রতিনিধি।।

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলা এ বছর বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিশর্দন করে দেখা যায়, গত বছরের চেয়ে এবছর প্রচুর পরিমাণ জমিতে বোরো ধান চাষ করেছে কৃষকেরা।

দিশাবন্দ গ্রামের প্রবীন কৃষক মো আবদুল মান্নান বলেন, আমি গত কয়েক বছরের চেয়ে এবছর বেশি জমিতে বোরো ধান রোপন করেছি। আমার তিন একর জমিতে প্রায় তিনশত মণ ধান হবে আশা করি। কোন ঝড়বৃষ্টি না হওয়া এখন পর্যন্ত কোন ক্ষয়ক্ষতি হয় নাই। আশাকরি কোন ক্ষয়ক্ষতি না হলে আমি এ বছর প্রায় তিনশত মণ ধান গোলায় তুলতে পারবো । বর্তমান সরকার কৃষক বান্ধব সরকার। কৃষকদের প্রতি নজর দিয়েছে। তাই কৃষক এরা ধান চাষের প্রতি গুরুত্ব দিয়েছে । আল্লাহ যদি আমার এ ফসলি জমি হেফাজত করে।আগামীতে আরো বেশি করে বোরো ধানের চাষ করবো ইনশাআল্লাহ।

লৎসর গ্রামের আরো একজন প্রবীন কৃষক মো জয়নাল আবেদিন বলেন, বাংলাদেশ কৃষি প্রধান দেশ। অধিকাংশ মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। কৃষি কে ভালবাসি বলে, এবছর আমি দুই একর জমিতে বোরোধান চাষ করেছি। আশা করি ভাল লাভবান হবো। সরকার এখন ধানের মূল্য নির্ধারণ করেছে যার কারণে কৃষকেরা এখন কৃষি উপর অনেক গুরুত্ব দিচ্ছে। সরসপুর ইউনিয়ন আবু তাহের চৌধুরীর ছেলে তরুন ও অভিজ্ঞ কৃষক মো আনোয়ার হোসেন রিপন বলেন, বাংলাদেশের মানুষ একমাত্র একটি ফসলের উপর গুরুত্ব দিয়ে থাকে সেটা হল বোরো ধানের চাষ। প্রতি বছর ন্যায় এ বছর অনেক বেশি বোরো ধানের চাষ করেছি। আমার ৫ একর জমিতে ছয়শত মণ ধান হবে বলে আশাকরি।

উপজেলা কৃষি অফিসার সুজন কুমার ভৌমিক কাছ থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে উপজেলার কৃষি প্রনোদনা ও পূর্নবাসন কর্মসূচির আওতায় ৩৫০০ জন কৃষক এর মাঝে ২কেজি করে হাইব্রিড বোরো ধানের বীজ দিয়েছি। ১১৯৫ জন কৃষক এর মাঝে বীজ ও সার বিতরণ করে থাকি।আশা করি আমাদের পরামর্শ অনুযায়ী কৃষক এরা হাইব্রিড বোরো ধানের চাষাবাদ করিলে অনেক লাভবান হবে।

After Related Post