৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ধরে নিয়ে হত্যার দায়ে ২ জনের যাবজ্জীবনগৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টা, সাবেক আ’লীগ নেতার গোপনাঙ্গ কেটে হত্যাপ্রতারণা করে হাতিয়েছেন ৬ কোটি টাকা, গড়েছেন দোকান-ফ্ল্যাট ব্যবসাকুমিল্লায় ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতারকুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় বিপদজনক হয়ে উঠছে সড়কে দাপিয়ে বেড়ানো অটোরিকশাকুমিল্লা বুড়িচংয়ে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারে চারা রোপণ,কমে আসছে সময় ও খরচবুধবার এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশনোবিপ্রবির ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রারের পদত্যাগসময় টিভির বার্তা প্রধাণের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে কুমিল্লায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশকুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে মহাসড়কের পাশ থেকে প্রতিবন্ধির মরদেহ উদ্ধার

বাংলাদেশ গেমসে স্বর্ণ জিতলেন সালমা – জাহানারারা

৮৩
header

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ থেকেই বোলারদের দাপট দেখিয়ে এসেছে বাংলাদেশ নীল দল। যা বজায় থাকল ফাইনাল ম্যাচ পর্যন্ত। জাহানারা আলম, সালমা খাতুনদের বোলিং তোপে ফাইনালে উড়েই গেছে রোমানা আহমেদ, শারমিন সুলতানাদের বাংলাদেশ সবুজ দল।দুর্দান্ত জয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নীল দল।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে নবম বাংলাদেশ গেমসের ওয়ানডে ফরম্যাটের নারী ক্রিকেট ইভেন্টে তিন দলে ভাগ হয়ে খেলেছেন দেশের শীর্ষস্থানীয় নারী ক্রিকেটাররা। প্রথম রাউন্ডে সব দল খেলেছে দুইটি করে ম্যাচ। সেখানে অপরাজিত থেকেই ফাইনালে পৌঁছায় নীল দল।

আজ (শুক্রবার) স্বর্ণপদক নির্ধারণী ম্যাচেও বজায় থাকল সেই দাপট। শারমিন সুলতানার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ সবুজ দলকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে নীল দল। আগে ব্যাট করে ৩৬ ওভারে মাত্র ৭২ রানে অলআউট হয় সবুজ দল। যা তাড়া করতে মাত্র ১৮.২ ওভার লেগেছে ফারজানা হক, শামীমা সুলতানাদের।

ম্যাচে টস জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নীল দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন। অধিনায়কের সিদ্ধান্ত সঠিক প্রমাণ করতে সময় নেননি তারকা পেসার জাহানারা। ইনিংসের সপ্তম ওভারে জোড়া আঘাত হানেন তিনি, ফিরিয়ে দেন প্রতিপক্ষ অধিনায়ক শারমিন সুলতানা (৮) ও সুমাইয়া আক্তারকে (০)

প্রথম পাওয়ার প্লে’র ১০ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ২৬ রান করতে সক্ষম হয় সবুজ দল। ইনিংসের ১১তম ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে এসেই উইকেট নেন সালমা। তার বলে এগিয়ে মারতে গিয়ে স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন ১২ রান করা সানজিদা আক্তার।

চতুর্থ উইকেটে খানিক প্রতিরোধের আভাস দেন নুজহাত টুম্পা ও রোমানা আহমেদ। তবে দুজন মিলে ১৫ রানের বেশি যোগ করতে পারেননি। রোমানা ১৪ ও উইকেটরক্ষক নুজহাত আউট হন ৮ রান করে। দুজনকেই ফেরান আগের ম্যাচে ৪ উইকেট নেয়া মুমতা হেনা।

সবুজ দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৮ রান করেন রিতু মণি। তার ৩৯ বলের ইনিংসে ছিল ২টি চারের মার। পুরো ইনিংসে মোট ৭টি চার মারতে সক্ষম হয় সবুজ দল। শেষপর্যন্ত তাদের ইনিংস থামে ৩৬ ওভারে ৭২ রানে অলআউট হওয়ার মাধ্যমে।

নীল দলের পক্ষে ৮ ওভারে ১৫ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়েছেন জাহানারা, ৭ ওভারে সমান ১৫ রানে মুমতা হেনাও নিয়েছেন ৩ উইকেট। এছাড়া অধিনায়ক সালমা ২ ও রাবেয়া খানের ঝুলিতে গেছে ১টি উইকেট।

প্রায় এক ঘণ্টা আগেই প্রথম ইনিংস শেষ হওয়ায় মধ্যাহ্ন বিরতির আগে দ্বিতীয় ইনিংসের ১০ ওভার খেলানোর সিদ্ধান্ত নেন দুই আম্পায়ার। এ সময়ের মধ্যে ১০ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৩৮ রান করে ফেলে নীল দল। মুরশিদা খাতুন আউট হন ৯ রান করে, উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ২৪ রানে।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৩০ রান যোগ করেন শামীমা সুলতানা ও ফারজানা হক পিঙ্কি। ইনিংসের ১৫তম ওভারে এ জুটিটি ভাঙেন রোমানা। সাজঘরে ফিরে যান ৫৫ বলে ৫ চারের মারে ৩১ রান করা শামীমা।

এরপর আর উইকেট পড়তে দেননি ফারজানা ও ইসমা তানজিম। দুজনের অবিচ্ছিন্ন ১৮ রানের জুটিতে সহজেই ম্যাচ জিতে নেয় নীল দল। ফারজানা ৩২ বলে ২৮ ও তানজিম ১ রানে অপরাজিত ছিলেন। তখনও ইনিংসের বাকি ছিল ১৯০ বল।

After Related Post