৩রা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যু দন্ডাদেশ প্রাপ্ত পলাতক আসামি আব্দুল মজিদ গ্রেফতারকুমিল্লার নতুন সিভিল সার্জন ডাঃ নাছিমা আকতারমুরাদনগরে কৃষক খোকন মিয়া হত্যার প্রধান আসামী কারাগারে মো. হাবিবুর রহমানকুবিতে নেত্রকোনা এসোসিয়েশনের নবীন বরণ ও প্রবীণদের বিদায় অনুষ্ঠিতনোয়াখালীতে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার নারীদেশের প্রথম পাতালরেল নির্মাণের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রীকুমিল্লার হোমনায় দড়িচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণকুমিল্লার হোমনায় ফেন্সিডিল ও প্রাইভেটকারসহ দুই মাদক কারবারি আটককুমিল্লার হোমনায় শিক্ষার্থীদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ করেন মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংককুমিল্লার হোমনায় উপজেলা প্রশাসন পাবলিক লাইব্রেরি উদ্বোধন

নাগরিক সেবা নিশ্চিত করলে জনগণ কর দেবে – স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

৭২
header

নাগরিক সেবা নিশ্চিত করলে জনগণ কর পরিশোধে আরও বেশি আগ্রহী হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

রোববার (২১ মার্চ) রাজধানীর একটি হোটেলে এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, জনগণকে যদি সেবা নিশ্চিত করা হয়, তাহলে জনগণও কর পরিশোধ করবে। সিটি করপোরেশনগুলোকে নিজস্ব অর্থায়ানে স্বাবলম্বী হওয়ার জন্য নানামুখী কার্যক্রমের পাশাপাশি কর আদায়ে মেয়রদের আরও বেশি ভূমিকা রাখতে হবে। এছাড়া জনগণের সঙ্গে আরও বেশি সম্পৃক্ত হতে সব জনপ্রতিনিধিকে পরামর্শ দেন তিনি।

তাজুল ইসলাম বলেন, জনগণ যদি বুঝতে পারে তারা ১ হাজার টাকা কর পরিশোধ করলে সরকার তাদেরকে ১০ হাজার টাকার সুযোগ-সু্বিধা দেবে, তখন জনগণ নিজ ইচ্ছায় কর পরিশোধ করবে। কোনো জোর করার প্রয়োজন হবে না। জনগণকে আপনারা যে সেবা দিচ্ছেন বা দেবেন তা নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে আশ্বস্ত করতে হবে। তবেই জনগণ সেবার বিনিময়ে কর পরিশোধ করবে।

তিনি আরও বলেন, মানুষ যখন জানবে যে তার ট্যাক্সের টাকা দিয়ে রাস্তা করা হবে, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হবে, ধুলোবালি থাকবে না, মশা থাকবে না, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা করা হবে, স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষা নিশ্চিত সবকিছুর ব্যবস্থা থাকবে সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে, তখন কর দিতে তারাও দায়বদ্ধ থাকবে।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ শুধু পাকিস্তানই নয় দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের থেকে উন্নয়নের বিভিন্ন ইনডিকেটরে এগিয়ে রয়েছে। বিশ্বব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী পাকিস্তানের মাথাপিছু আয় ১৩ শত ডলার আর আমাদের দেশের ২১ শত ডলার। শুধু মাথাপিছু আয় নয় সকল খাতে আমরা এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে অনেক উপরে আছি। আর এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, কোভিড টেস্ট করার জন্য শুরুতে দেশে মাত্র একটি পিসিআর ল্যাব ছিল। কিন্তু মাত্র কয়েক মাসের মধ্যে একশর উপরে পিসিআর ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায়। এছাড়া দেশের প্রত্যেকটি জেলা-উপজেলায় আইসিইউ স্থাপন করা হয়। শেখ হাসিনার ৩১ দফা নির্দেশনা বাস্তবায়ন করায় করোনা সঙ্কট অন্যান্য দেশ থেকে তুলনামূলকভাবে মোকাবিলা করতে আমরা সক্ষম হয়েছি।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন।

After Related Post