২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জিম্বাবুয়েকে ৯ উইকেটে উড়িয়ে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
header

নিউজ ডেস্ক।।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব শুরুর আগে প্রস্তুতিটা দুর্দান্তই হচ্ছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের। স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দাপুটে ক্রিকেট খেলে চলেছেন সালমা খাতুন, জাহানারা আলম, ফাহিমা খাতুনরা।

শনিবার তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে উড়িয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জিতে নিয়েছে বাংলাদেশ দল। ব্যাট হাতে অপরাজিত ফিফটি হাঁকিয়েছেন মুর্শিদা খাতুন হ্যাপি ও ফারজানা হক পিংকি।

বুলাওয়ের কুইন্স স্পোর্টস ক্লাব মাঠে আগে ব্যাট করে ১২১ রানের বেশি করতে পারেনি স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে। জবাবে মাত্র এক উইকেট হারিয়ে ২৪.৩ ওভারেই ম্যাচ জিতে নিয়েছে ফাহিমা খাতুনের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল।

প্রথম ম্যাচে জাহারানা, সালমা, নাহিদাদের তোপে মাত্র ৪৮ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। সেই লক্ষ্য তাড়া করতে বাংলাদেশও হারিয়েছিল দুইটি উইকেট। আজ স্বাগতিকরা একশ রানের গণ্ডি পেরোলেও, জিততে সমস্যা হয়নি পিংকি-হ্যাপিদের।

ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ম্যারি অ্যান মুসোন্দা। কিন্তু কোনো ব্যাটারই অধিনায়কের সিদ্ধান্তের যথার্থতা প্রমাণ করতে পারেননি। মুসোন্দা নিজেই আউট হন মাত্র ১০ রান করে।

জিম্বাবুয়ের ইনিংসের প্রথম বলেই আঘাত হানেন বাংলাদেশের তারকা পেসার জাহানারা। এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট হারিয়েছে জিম্বাবুইয়ানরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেছেন সাত নম্বরে নামা নিয়াশা গুয়ানজুরা। এছাড়া ৩৩ রান এসেছে উইকেটরক্ষক ব্যাটার মডেস্টার মুপাচিকার উইলো থেকে।

বাংলাদেশের পক্ষে বল হাতে সর্বোচ্চ তিন উইকেট শিকার করেছেন বাঁহাতি স্পিনার নাহিদা আক্তার। এছাড়া দুইটি করে উইকেট নিয়েছেন জাহানারা আলম ও সালমা খাতুন।

পরে ১২২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দলীয় ১০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত আট রান করে সাজঘরে ফিরে যান ওপেনার শারমিন আক্তার। তবে দ্বিতীয় উইকেটে আর বিপদ ঘটতে দেননি হ্যাপি ও পিংকি।

এ দুজনের অবিচ্ছিন্ন ১১৫ রানের জুটিতে সহজ জয়ই পেয়েছে বাংলাদেশ নারী দল। ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটিতে ৫১ রানে অপরাজিত ছিলেন হ্যাপি। আর পিংকির ব্যাট থেকে এসেছে ৫৩ রানের ইনিংস।

সোমবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে মাঠে নামবে এ দুই দল।

After Related Post