১০ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ছাত্রলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা, তিন আসামি অস্ত্রসহ গ্রেফতার

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
২৭
header

নগরবাংলা নিউজ ডেস্ক।।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের ছাত্রলীগ নেতা হাসিবুল বাশার হত্যার প্রধান আসামিসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র ও হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত লোহার রড, ধারালো কিরিছ জব্দ করা হয়েছে।

রোববার (১০ জুলাই) রাতে ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার বাড়াই গোবিন্দ এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে বেগমগঞ্জ পুলিশ।

গ্রেফতার হাসান (৩১) বেগমগঞ্জ উপজেলার ২নং গোপালপুর ইউনিয়নের মহবুল্লাপুর গ্রামের মৃত আবু মিয়ার ছেলে, জয় (২১) একই গ্রামের মিন্টু মিয়ার ছেলে ও রুবেল (৪০) তিতা হাজারা গ্রামের মৃত আবু তাহেরের ছেলে।

সোমবার (১১ জুলাই) দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম আসামি গ্রেফতার ও অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় আসামিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে তাদের তথ্যমতে ঘটনাস্থলের পাশে খাল থেকে দুটি ধারালো কিরিছ ও একটি লোহার রড এবং প্রধান আসামি হাসানের প্রজেক্ট থেকে একটি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

এসপি আরও বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ নেতা হাসিবুল বাশারকে দিনদুপুরে গলা কেটে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এর আগে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার ২নং গোপালপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কোটরা মহব্বতপুর গ্রামের সুবহান মার্কেট এলাকায় হাসিবুল বাশারকে (২৫) গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

পরে বিকেলে তার মরদেহ নিয়ে চৌমুহনী চৌরাস্তায় বিক্ষোভ করেন বেগমগঞ্জ উপজেলা, চৌমুহনী পৌরসভা ও এস এ কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এদিকে বৃহস্পতিবার রাতে নিহতের চাচা সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে হাসানকে প্রধান আসামি করে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা করেন। পরে ওই রাতেই পুলিশ রকি (২৬) ও বাহার উদ্দিন (২২) নামে দুই আসামিকে গ্রেফতার করে।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) দীপক জ্যোতি খিসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেগমগঞ্জ সার্কেল) মো. নাজমুল হাসান রাজিব, বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনিসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

After Related Post