৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

কুমিল্লার লাকসামে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
header

নগরবাংলা নিউজ ডেস্ক।।

জেলা তথ্য অফিস, কুমিল্লার আয়োজনে লাকসাম উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ (১ম সংশোধিত) প্রকল্পের আওতায় ২৩ প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ, বর্তমান সরকারের উন্নয়ন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতা, গুজব, বাল্য বিবাহ, মাদক এবং সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ প্রতিরোধ বিষয়ে মহিলা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সিনিয়র তথ্য অফিসার, কুমিল্লা মোহাম্মদ নূরুল হক’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মহিলা সমাবেশে ভিডিও কলের মাধ্যমে সম্মানিত অতিথির বক্তব্য রাখেন গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে প্রচার কার্যক্রম শক্তিশালীকরণ (১ম সংশোধিত) প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ ওমর ফারুক দেওয়ান। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কুমিল্লা জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোছা: কানিজ তাজিয়া। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উত্তরদা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: ইমাম উদ্দিন, লাকসাম উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মানসী পাল ও ইউপি সদস্য খ. ম রিয়াদ।

সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, করোনা সংকট মোকাবেলায় বাংলাদেশ সফল হয়েছে। করোনাকালে জনগণের জীবনমান ঠিক রাখার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী দেশের জিডিপি গ্রোথ বজায় রেখেছেন। অনেক উন্নত দেশ তা পারেনি। এছাড়া সকলমানুষকে বিনামূল্যে করোনা টিকা প্রদান করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে বিশে^র প্রথম সারি দেশের মর্যাদায় উপনীত করেছেন।

বক্তাগণ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দশটি বিশেষ উদ্যোগের বিস্তারিত বর্ণনা দিয়ে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে প্রতিটি বাড়িতে বিদ্যুৎ পৌছেছে, বিদ্যুৎ উৎপাদনের স্বক্ষমতা বেড়েছে, লোড শেডিং অনেক হ্রাস পেয়েছে। বক্তাগণ নারী শিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি। কন্যা সন্তানের নিরাপত্তা ও ভবিষ্যত উন্নতি চাইলে তাকে শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। বক্তাগণ আরো বলেন সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি ও অন্যান্য কার্যক্রমের ফলে দ্রারিদ্রতার হার ব্যাপক ভাবে হ্রাস পাওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, মানুষ এখন আর অসহায় নেই। দরিদ্র মানুষ যাদের বাড়ী নাই বা বাড়ী করার সামথ্য নাই তাদের সরকারী উদ্যোগে বাড়ী করে দেয়া হচ্ছে। উন্নত রাষ্ট্রের শিক্ষা ব্যবস্থা প্রচলন ও বিনা মূল্যে বই বিতরণসহ শিক্ষা ক্ষেত্রে বিভিন্ন কার্যক্রমের কথা উল্লেখ করে সমৃদ্ধ বাংলাদেশের উপযোগী মানুষ হিসেবে সন্তানদের গড়ে তোলার জন্য অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান। মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ এর প্রতি জিরো টলারেন্সের কথা উল্লেখ করে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের প্রতি সম্মান দেখিয়ে উপজেলার মানুষকে এই অপরাধ গুলির বিরুদ্ধে জোড়ালো ভূমিকা রাখার অনুরোধ করেন। বক্তাগণ বলেন বাল্য বিবাহ যেখানে সেখানেই প্রতিরোধ করা হবে। দলমত নির্বিশেষে সকলকে দেশের প্রতি আস্থা বিশ্বাস ও ভালোবাসা বাড়াতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধ ভাবে দেশেকে টেকসই উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিতে হবে। এটি সামাজিকভাবে দেশের সকল নাগরিকের দায়িত্ব।

সমাবেশ সঞ্চালনায় ছিলেন মো: আবদুল করিম, ঘোষক, জেলা তথ্য অফিস, কুমিল্লা। মহিলা সমাবেশের পূর্বে চলচ্চিত্র প্রদর্শন অনুষ্ঠিত হয়।

After Related Post