১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও নাংগলকোটে টিটিসি’র উদ্বোধন ২৮ জুলাই

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
১৪
header

নগরবাংলা নিউজ ডেস্ক।।

শিঘ্রই কারিগরি প্রশিক্ষণের জন্য নতুন দিগন্ত উন্মোচন হতে যাচ্ছে। কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম এবং নাংগলকোটে ২টিসহ সারাদেশে ২৪টি নতুন কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। আগামীকাল ২৮ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাচুর্য়ালি এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করবেন। এ উপলক্ষে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন, গণপূর্ত বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ, কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষবৃন্দ, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ টিটিসি দুটি আজ সরেজমিনে পরিদর্শন করেন।

কুমিল্লা জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারী পরিচালক দেবব্রত ঘোষ জানান, বিশ্ব শ্রম বাজারে দক্ষ কর্মী প্রেরণ এবং দেশে চাহিদা অনুযায়ী দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে সারাদেশে এক সাথে ৪০টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি) নির্মাণ করছে সরকার। প্রথম পর্যায়ে ২৪টি টিটিসি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল ২৮ জুলাই ভাচুর্য়ালি উদ্বোধন করবেন।

দেবব্রত ঘোষ আরও বলেন, দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে দক্ষ জনশক্তির প্রেরণের নিমিত্ত টিটিসি নির্মাণ করা হচ্ছে যাতে প্রয়োজন অনুযায়ী বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষণ নিতে পারে। প্রশিক্ষিত কর্মীরা বিদেশে গিয়ে অধিক উপার্জন করে অধিক রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়ে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন তরান্বিত করতে পারবে। তিনি জানান, দেশের ৪০টি উপজেলায় ৪০টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও চট্টগ্রামে ১টি ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি স্থাপন (১ম সংশোধিত)’ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আওতাভুক্ত জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি)। উদ্বোধনের পর শুরু হবে ছাত্রছাত্রী ভর্তির প্রক্রিয়া।

এদিকে টিটিসি উদ্বোধনকে ঘিরে ব্যাপক প্রস্তুতি শুরু করেছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। গঠন করেছে প্রতিটি টিটিসিভিত্তিক উপকমিটি। কমিটিগুলো তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা গণভবন থেকে ভাচুর্য়ালি ২৪টি টিটিসি উদ্বোধন করবেন। এ সময় ঢাকা ওসমানি মিলনায়নে হবে মূল অনুষ্ঠান। সেখানে থাকবেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী। কুমিল্লা জেলার ২টি টিটিসি উদ্বোধন উপলক্ষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে ভার্চয়ালি যুক্ত হবেন এখানকার সংশ্লিষ্টরা।

বিএমইটি সূত্র জানায়, উদ্বোধনের পর দেশে—বিদেশে চাহিদা অনুযায়ী এসব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে স্বল্প, মধ্যম ও দীর্ঘ মেয়াদী কমপক্ষে ২০টি কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এর মধ্যে অন্যতম কয়েকটি হচ্ছে ড্রাইভিং, কম্পিউটার, গার্মেন্টস, অটোমোবাইল, রেফ্রিজারেটর, ইলেকট্রিক্যাল, ইলেকট্রনিক্স, সিএনসি, আরপিএল ইত্যাদি। এজন্য প্রতিটি টিটিসি’তে বার্ষিক কমপক্ষে এক হাজার শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। কোর্সগুলোর মেয়াদ হবে সর্বনিম্ন চার মাস থেকে সর্বোচ্চ দুই বছর। শিক্ষার্থীর ভর্তির যোগ্যতা অষ্টম শ্রেণি থেকে এসএসসি পাস।

After Related Post