২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এভাবে হৃদয় ভাঙলো ফ্যাফ ডু প্লেসির

নগর বাংলা২৪ ডট কম:
১৩৬
header

সেঞ্চুরিয়নের সুপার স্পোর্টস পার্কে শ্রীলঙ্কার চ্যালেঞ্জিং ব্যাটিংয়ের জবাবে অসাধারণ ব্যাটিং করে যাচ্ছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকাও। শ্রীলঙ্কা করেছিল ৩৯৬ রান। জবাবে এরই মধ্যে ২১৫ রানে লিড নিয়ে ফেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। যদিও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হারিয়েছে ৯ উইকেট।

তবে দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসির জন্য আক্ষেপ। মাত্র একটি রানের জন্য ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিটা পেলেন না প্লেসি। আউট হয়েছেন ১৯৯ রানের মাথায়। এর আগে তার ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ ইনিংস ছিল ১৩৭ রানের।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৯ উইকেট হারিয়ে ৬১১ রান। ৬৬ রান নিয়ে ব্যাট করছেন কেশাভ মাহারাজ। লুঙ্গি এনগিদি মাঠে নামলেও রান করতে পারেননি। লিড, ২১৫ রানের।

শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংসের জবাব দিতে নেমে দুই ওপেনারই দারুণ সূচনা এনে দেন। ডিন এলগার আর এইডেন মারক্রান মিলে গড়েন ১৪১ রানের জুটি। এলগার ৯৫ রান করে আউট হন। ৫ রানের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হন তিনি। ৬৮ রান করে আউট হন এইডেন মারক্রাম। রাশি ফন ডার ডুসেন আউট হন মাত্র ১৫ রান করে।

অধিনায়ক কুইন্টন ডি কক আউট হন ১৮ রান করে। এরপরই টেম্বা বাভুমাকে নিয়ে জুটি গড়েন ফ্যাফ ডু প্লেসি। ১৭৯ রানের জুটি গড়েন এই দু’জন। বাভুমা আউট হন ৭১ রান করে। এরপর উইয়ান মালডার করেন ৩৬ রান। তাকে নিয়ে ডু প্লেসি গড়েন ৭৭ রানের জুটি।

এরপর কেশভ মাহারাজের সঙ্গে ১৩৩ রানের জুটি গড়ে তোলেন ফ্যাফ ডু প্লেসি। শেষ পর্যন্ত যখন জীবনের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি উদযাপন করতে যাবেন, তখনই ভুলটা করে বসলেন ডু প্লেসি। ওয়ানিদু হাসারাঙ্গার বলে মিডঅনে সহজ ক্যাচ তুলে দেন ডু প্লেসি। সেই ক্যাচ ধরতে মোটেও কষ্ট হয়নি করুনারত্নের।

হতাশায় মাথায় ঝাঁকাতে শুরু করেন ডু প্লেসি। একইভাবে হতাশা প্রকাশ করেন দক্ষিণ আফ্রিকা টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যরাও। যদিও উইকেট পাওয়ার আনন্দে মেতে ওঠেন শ্রীলঙ্কানরা। ডু প্লেসি আউট হওয়ার পর অবশ্য দ্রুত ফিরে যান অ্যানরিখ নর্তজে, লুথো শিপমালা।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা একাই নেন ৪ উইকেট। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন বিশ্ব ফার্নান্দো এবং দাসুন সানাকা। ১টি উইকেট নেন লাহিরু কুমারা।

After Related Post