৪ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
কুমিল্লা দাউদকান্দিতে ৫শ’ পিছ ইয়াবাসহ একজন আটককুমিল্লা নগরীর ইসলামপুর থেকে মোটরসাইকেল চুরিওভারটেক করতে গিয়ে ট্রাক-পিকআপ সংঘর্ষ, আহত ৩মেঘনার বুকে নতুন চর, স্বপ্ন সবুজ বিপ্লবেরকুমিল্লা হোমনার কৃতিসন্তান ডক্টর মনজুরুল ইসলাম বৃটেনের উলস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদানকুমিল্লার হোমনায় ইউএনও রুমন দে কে বিদায় সংবর্ধনা দিলেন স্কুল ও মাদ্রাসাকুমিল্লার বুড়িচংয়ে স্কুল ছাত্র রায়হান হত্যার প্রধান আসামি জামালপুর থেকে গ্রেফতারকুবিতে ইংরেজি বিভাগের নবীন বরণবই পৌঁছাতে দেরি হলে ওয়েবসাইট থেকে পড়ানোর পরামর্শঃ দীপু মনিনির্বাচন ছাড়া ক্ষমতায় আসা সম্ভব হবে নাঃ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অরাজকতা বন্ধ করতে চলছে উচ্ছেদ অভিযান

২১৭
header

তৌহিদ খন্দকার তপু।।

অরাজকতা বন্ধ করে পরিচ্ছন্ন কুমিল্লা গড়ার লক্ষ্যে ফুটপাত ও ফুটপাতের উপরে টিন দিয়ে দখল করা জায়গা দখলমুক্ত করতে উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রাখতে বুধবার সকাল ১১ টা থাকে বাদুরতলা এলাকায় সিটি করপোরেশনের সহায়তায় মোবাইল কোর্ট এর মাধ্যমে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছেন, কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবু সাঈদ।

প্রতিদিনই নগরীর কোথাও না কোথাও অভিযান করছেন। কে কত বড় প্রভাবশালী সেটা দেখার বিষয় নয়, সরকারী জায়গায় অবৈধ স্থাপনা যারাই নির্মান করছে, তাদের সেই অবৈধ স্থাপনাই ধ্বংস করা হচ্ছে। অসহায় হকারদের জীবনমান দেখার পাশাপাশি রাস্তার জনগনের চলাচল নির্বিগ্ন করতে অভিযান করে দখলমুক্ত করা হচ্ছে ফুটপাত।

অপরিকল্পিত নগরায়নের ফলে এমনিতেই নাকাল নগরবাসী, তার উপর ফুটপাত দখল হয়ে যাওয়ায় চলাচলে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয় সাধারন জনগনকে, তাই জনগনের চলাচল সুবিধার্থে এ উচ্ছেদ অভিযান।

ইতিমধ্যেই এ ধরনের অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছে নগরবাসী। যাদের উপর দায়িত্ব ছিল পরিচ্ছন্ন নগরায়নের সেই, সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নির্মিত কুমিল্লা নিউমার্কেট এর সামনের পার্কিং এলাকা উচ্ছেদ করে সিটি কর্পোরেশনের জনবল ও বেকু দিয়ে। গত সোমবার সকাল থেকেই নগরীর ব্যস্ততম এলাকা কুমিল্লা পুলিশ লাইন এলাকা থেকে ঝাউতলা পর্যন্ত প্রায় ১কিলোমিটার এলাকা ফুটপাত দখলমুক্ত করা হয়েছে। সিটি কর্পোরেশনের সহযোগিতায় এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসন। এ কাজে সার্বিক সহযোগিতা করেছে জেলা আনসার বাহিনী ও বিদ্যুৎ বিভাগ।

এক পথচারী জানান, আগে একদিন অভিযান করে গেলে আর কোন খবর রাখা হত না, এখন প্রতিদিনই অভিযান অব্যাহত থাকায়, জনমনে অন্যরকম ধারনা জম্মেছে, যে ইচ্ছে করলেই কেউ ম্যাজিষ্ট্রেট যাবার পরই আবার দখল করতে পারবে না।

কান্দিরপাড় লিবার্টি মোড়ে একেবারে লোহার রড দিয়ে ফুটপাতে স্থায়ী দোকান চালাচ্ছিল।অনেক স্থানে ছিল মিটারবিহীন বৈদ্যুতিক সংযোগ।এখন সবগুলো ভেঙে ফেলায় জনগন চলাচলে অনেক সুবিধা ভোগ করছে।
এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান কুমিল্লা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আবু সাঈদ।

তিনি আরো জানান, জেলা প্রশাসক মোঃ আবুল ফজল মীর স্যারের নির্দেশে প্রতিদিনই সচেতনতার পাশাপাশি উচ্ছেদ করে ইতিমধ্যেই শহরের অনেকাংশই ফুটপাত দখলমুক্ত করতে সক্ষম হয়েছি। সকলের সহযোগিতা পেল ফুটপাত দখলমুক্ত ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন কুমিল্লা গড়তে সক্ষম হব। এ জন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করে।

After Related Post